স্বদেশ
মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০ ৫ কার্ত্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

কাজের ছেলেকে বিয়ে করতে যে কাণ্ড ঘটালো মেয়ে!

নওগাঁ প্রতিনিধি
প্রকাশিতঃ সেপ্টেম্বর ২৮, ২০২০ , ১১:১৬ পূর্বাহ্ন
কাজের ছেলেকে বিয়ে করতে যে কাণ্ড ঘটালো মেয়ে!

‘বড় লোকের মেয়ে গরীবের ছেলে’ এমন শিরোনামে হয়তো সিনেমাও অনেকে দেখেছেন। সচরাচর এমন অসম প্রেমের কাহিনী সিনেমাতে দর্শক উপভোগ করলেও বাস্তবে এমন ঘটনা অনেককে নাড়িয়ে দিয়েছে। অবস্থাপন্ন ঘরের এক কিশোরীই কী-না শেষমেষ বাড়ির কাজের ছেলের প্রেমে পড়ে তুলকালাম কাণ্ড ঘটিয়ে বসেছে। বাড়ির মেয়ে-কাজের ছেলের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠেছে আগে থেকেই। আর স্বাভাবিক নিয়মেই সে সম্পর্ক মেনে নিতে নারাজ ওই মেয়ের বাবা ও ভাই। তাই তাকে গৃহবন্দি করে রাখা হয়। কিন্তু সুযোগ পেয়েই মেয়ে প্রেমিকের বাড়িতে গিয়ে বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করে। পরে শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ

আরও পড়ুন : কোটি টাকা মেরে উধাও এনজিও মালিক

ওই কিশোরীর বাড়ি নওগাঁর মান্দা উপজেলার গণেশপুর ইউনিয়নের ভেবড়া গ্রামে। প্রেমিক আবদুল খালেকের বাড়িও একই গ্রামে। শনিবার সকাল থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত প্রেমিকের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থান করে ওই কিশোরী। এ সময় প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে না হলে আত্মহত্যার হুমকিও দেয় সে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ওই কিশোরীদের বাড়িতে কাজ করতেন আবদুল খালেক। দীর্ঘদিন কাজ করার সুবাদে কিশোরীর সঙ্গে খালেকের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু খালেক দরিদ্র হওয়ায় প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিতে পারছিলেন না মেয়ের বাবা এবং বড় ভাই। খালেকের বাড়িতে এর আগেও বিয়ের দাবিতে অবস্থান নেয় ওই কিশোরী। তার সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হবে বলে মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখা হয়। প্রেমিকের সঙ্গে বিয়ে না হলে আত্মহত্যা করবে বলেও হুমকি দেয় সে।

অনশনরত কিশোরী বলে, ‘আমাদের বাড়িতে কাজ করার সুবাদে প্রতিবেশী চাচাতো ভাই আবদুল খালেকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। কিন্তু তারা গরিব হওয়ায় আমার বাবা ও ভাই এ সম্পর্ক মেনে নিতে পারছিলেন না। তাই বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নিয়েছি। তার সঙ্গে বিয়ে না দিলে আত্মহত্যা করা ছাড়া আর কোনো পথ নেই।’

ছেলের মা ময়না বলেন, আমরা গরিব বলে তার বাবা ও বড় ভাই সম্পর্ক মেনে নিতে চায় না। বরং মিথ্যা মামলায় ফাঁসাতে আমাদের বিভিন্নভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে।’

  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
    14
    Shares
  •  
    14
    Shares
  • 14
  •  
  •  
  •  
  •